ঢাকা, শনিবার ৩০ মে ২০২০, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


Notice: Undefined variable: i in /home/bornomalatv/public_html/wp-content/themes/smrlit/single.php on line 21

মা-বাবা নানী ও বোনকে খুন করলো বাংলাদেশি যুবক

প্রকাশিত : ০৪:৩৪ অপরাহ্ণ, ৭ আগস্ট ২০১৯ বুধবার ১২৪ বার পঠিত

নিউজ ডেস্ক
alokitosakal

 

টরন্টো শহরের মারখাম এলাকার ক্যাসেলমোর অ্যাভিনিউয়ের একটি বাসা থেকে গত রোববার চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয় ইয়র্ক রিজিওনাল পুলিশ। এরা সবাই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বলে জানা গেছে।

হত্যার শিকার চার ব্যক্তি হলেন মোহাম্মদ মুনির, তার স্ত্রী মুক্তা জামান, মেয়ে মিকা ও মুনিরের শাশুড়ি। শাশুড়ির নাম জানা যায়নি।

এ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে পুলিশ বাসার সামনে থেকে ২৩ বছর বয়সী মিনহাজ জামানকে গ্রেপ্তার করেছে। মিনহাজ জামান মুনির-মুক্তা জামান দম্পতির একমাত্র ছেলে।

গ্রেপ্তার মিনহাজ জামানের বিরুদ্ধে পরিবারের সদস্যদের খুনের অভিযোগ এনেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার তাকে ইয়র্কের নিউমার্কেট আদালতে হাজির করা হয়। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডে নেয় পুলিশ। আগামী ২ আগস্ট মিনহাজ জামানকে আবার আদালতে হাজির করার কথা।

ইয়র্ক পুলিশ জানায়, রোববার বেলা ৩টায় তাদের কাছে একটি ফোন আসে। ফোনে জানানো হয়, মারখামের ক্যাসেলমোর অ্যাভিনিউয়ের ওই বাড়িতে কিছু মানুষ আহত হয়ে পড়ে আছেন। এ খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে চারজনকে পড়ে থাকতে দেখে। এদের কেউ তখন আর বেঁচে নেই। তবে কে, কোন জায়গা থেকে ৯১১ নম্বরে ফোন দিয়েছিল, তা জানাতে অস্বীকার করে পুলিশ।

প্রতিবেশীদের সূত্রে জানা যায়, মিনহাজ জামান ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি থেকে ঝরে পড়া শিক্ষার্থী। তিনি স্বল্পভাষী এবং সব সময় শান্তশিষ্ট থাকতে ভালোবাসেন। পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে মানসিক বিকারগ্রস্ত হয়ে পড়েন। গত রোববার বাবা, মা, নানি ও ছোট বোনকে হত্যা করেন। এরপরই ‘পারফেক্ট ওয়ার্ল্ড ভয়েড’ (Perfect World Void) নামের অ্যাডভেঞ্চার ফ্যান্টাসি গেমের মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি জানান।

স্থানীয় গণমাধ্যমে মিনহাজ জামানের গেমের মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের পোস্টটির স্ক্রিনশটে দেখানো হয়। তাতে দেখা যায়, অভিযুক্ত মিনহাজ লিখেছেন, তিনি বাবা, মা, বোন এবং নানিকে হত্যা করেছেন। এক বছর ধরে এ ধরনের পোস্ট দিয়ে আসছিলেন তিনি। তাই মিনহাজ জামানের এ পোস্টটি কেউ বিশ্বাস করেননি। পোস্টে হতাশার কথাও লিখে তিনি বলেছেন, বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ঝরে পড়ার পর তিনি হতাশ হয়ে পড়েন। পরে নাস্তিকতায় পেয়ে যায় তাকে। ওই সময় থেকে তিন এ হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনা করতে থাকেন।

ধারণা করা হচ্ছে, গেম খেলার সময় অপর প্রান্তে মিনহাজ জামানের সঙ্গে খেলতে থাকা বন্ধুটি হত্যার খবর পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ বাড়ির সামনে থেকে অভিযুক্ত হিসেবে মিনহাজ জামানকে গ্রেপ্তার করে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বর্ণমালা টিভি'কে জানাতে ই-মেইল করুন- bornomalatv@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

বর্ণমালা টিভি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

1

2

3

4

5

6

7

8

9

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। বর্ণমালা টিভি | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: DONET IT