ঢাকা, বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রক্ত স্বল্পতার ৫ লক্ষণ

প্রকাশিত : ০৪:৪৭ পূর্বাহ্ণ, ১৫ আগস্ট ২০১৯ বৃহস্পতিবার ৩৯ বার পঠিত

নিউজ ডেস্ক
alokitosakal

 

শরীরে আয়রনের অভাবে রক্তশূন্যতা, অবসাদ, ক্লান্তির মতো নানা সমস্যা দেখা দেয়। পুষ্টিবিদদের মতে, রক্ত স্বল্পতা বিশ্বের সবেচেয়ে বড় অপুষ্টিজনিত সমস্যা যা মূলত শরীরে আয়রন অভাবেই হয়ে থাকে।

রক্তস্বল্পতা ছাড়াও অতিরিক্ত চুল ঝরা, অবসাদ, ক্লান্তির মতো নানা সমস্যা শরীরে বাসা বাঁধে আয়রন অভাবে। কিন্তু কী করে বুঝবেন আপনি রক্তাল্পতায় ভুগছেন?

আসুন জেনে নেওয়া যাক তেমন কয়েকটি লক্ষণ সম্পর্কে:

১) আপনি কি অল্পতেই হাঁপিয়ে যাচ্ছেন? দ্রুত চিকিত্সকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। কারণ, হয়তো আপনার শরীরে পর্যাপ্ত আয়রনের ঘাটতি হয়েছে!

২) অতিরিক্ত চুল ঝরে যাওয়া অ্যানিমিয়ার উপসর্গ হতে পারে। দিনে ৫০ থেকে ১০০টা চুল পড়া স্বাভাবিক। কিন্তু তার চেয়ে বেশি চুল ঝরলেই চিকিত্সকের কাছে যান।

৩) শরীরে আয়রনের অভাব হলে শরীর খুব তাড়াতাড়ি ক্লান্ত হয়ে পড়ে। কিন্তু মনে রাখতে হবে, ফুসফুসের সমস্যা বা অন্য কোনও কারণেও শরীর দ্রুত ক্লান্ত হতে পারে।

৪) হঠাৎ করে উদ্বেগ বা উত্কণ্ঠা বেড়ে যাওয়া রক্ত স্বল্পতার বা শরীরে আয়রনের ঘাটতির কারণে হতে পারে। এ ক্ষেত্রে দ্রুত চিকিত্সকের কাছে যান।

৫) রক্ত স্বল্পতা বা শরীরে আয়রনের ঘাটতির কারণে ত্বক ফ্যাকাশে হয়ে যেতে পারে। রক্তে হিমোগ্লোবিনের মাত্রা ঠিক থাকলে ত্বকে লালচে ভাব থাকবে। তাই আপনার ত্বক যদি ফ্যাকাশে হয়ে যায়, তাহলে বুঝতে হবে আপনি অসুস্থ।

আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে দাঁতের মাড়ি, ঠোঁটের ভিতরের অংশ বা চোখের ভিতরের অংশ পরীক্ষা করে দেখুন। যদি দেখেন তা ফ্যাকাশে দেখাচ্ছে, তাহলে বুঝতে হবে আপনার শরীরে আয়রনের ঘাটতি রয়েছে।

শেয়ার করে সঙ্গে থাকুন, আপনার অশুভ মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়। আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি বর্ণমালা টিভি'কে জানাতে ই-মেইল করুন- bornomalatv@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।

বর্ণমালা টিভি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

1

2

3

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। বর্ণমালা টিভি | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বে-আইনি, ডেভোলপ ও ডিজাইন: রাইতুল ইসলাম